Thursday, November 26গণ মানুষের কথা বলে...

সাবেক দুইবারের সাংসদ এনামুল হক জজ মিয়া মেয়রের প্রতি কৃতঙ্ঘতা প্রকাশ করেন ,,,,, রাজু

গফরগাঁও উপজেলা প্রতিনিধি ,,পৌর মেয়রের মানবিক সহায়তা পেল সাবেক সাংসদ জজ মিয়া
সর্বশান্ত হয়ে মানবেতর জীবন যাপন করা সাবেক দুইবারের সাংসদ(জাতীয় পার্টি) এনামুল হক জজ মিয়ার প্রতি মানবিকতার হাত বাড়িয়ে দিলেন পৌর মেয়র এস.এম ইবাল হোসেন সুমন।
শনিবার বিকেলে পৌর শহরের ২নং ওয়ার্ডের সালটিয়া গ্রামের ভাড়া বাসায় জজ মিয়ার হাতে ব্যক্তিগত তহবিল থেকে নগদ ৫০ হাজার টাকা তুলে দেন তিনি।
এসময় অন্যানের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সেচ্ছাসেবক লীগের আহবায়ক আওরঙ্গ হেলাল,পৌরসভা যুবলীগের যুগ্ন আহবায়ক তাজমুন আহম্মেদ,আশরাফুল ইসলাম আপেল প্রমুখ।
উল্লেখ্য,গত ২৮শে অক্টোবর ‘‘দৈনিক সংবাদ প্রতিদিনে” সাবেক দুইবারের সাংসদ জজ মিয়ার জবানবন্দি শিরোনামে সংবাদ প্রকাশিত হলে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এটি আলোচনার ঝড় তুলে।নজরে আসে স্থানীয় সংসদ সদস্য ফাহমী গোলন্দাজ বাবেলের।তিনি পৌর মেয়র কে নির্দেশ দেন বিষয়টি দেখার জন্য।মানবিক মেয়র ছুটে যান সালটিয়া গ্রামে জজ মিয়ার ভাড়া বাসায় ও তার হাতে তুলেদেন নগদ ৫০ হাজার টাকার একটি চেক।আনন্দে আত্নহারা হয়ে দুচোখ বেয়ে জল পড়ে সাবেক সাবেক দুইবারের সাংসদ জজ মিয়ার।এক সময় তার সবই ছিলো ক্ষমতা,অর্থ,সম্পদ,সম্মান সব কিছু হারিয়ে তিনি ছোট্র একটি ভারা করা কক্ষে এক সন্তান ও স্ত্রী নিয়ে মানবেতর জীবন যাপন করছিলেন।এসময় তাত্রা হয়ে মেয়র পৌছে দেন ৫০ হাজার টাকা।মানবিকতার এক উজ্জল দৃষ্টান্ত স্থাপন করেন মেয়র সুমন।
পৌর মেয়র এস.এম ইকবাল হোসেন সুমন বলেন, আমার মানবিক নেতা সংসদ সদস্য ফাহমী গোলন্দাজ বাবেল মহোদয়ের নির্দেশে সাবেক দুইবারের সাংসদ জজ মিয়াকে মানবিক সহায়তা করেছি।একাজ করতে পেরে আমি আত্মতৃপ্ত হয়েছি।উনি আজ পরিস্থিতির শিকার।উনাকে সহায়তা করা আমাদের দ্বায়িত্ব।আগামীতেও উনাকে আরও সরকারী সহায়তা প্রদান করা হবে।
সাবেক দুইবারের সাংসদ এনামুল হক জজ মিয়া মেয়রের প্রতি কৃতঙ্ঘতা প্রকাশ করে বলেন আমার এই পরিস্থিতিতে মেয়র যে মানবিকতা দেখিয়েছে তা দৃষ্টান্ত হয়ে থাকবে।আমি সংসদ সদস্য ও পৌর মেয়রের মাধ্যমে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে একটা গৃহের দাবি করছি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *